dohuakuri

দোহুয়াকুড়ি

(১) বাড়ি বদলের বারান্দায় ঝুলছেবিমাহীন মনকেমনচুপচাপ সন্ধ্যা নামা প্রতিবিম্বেরইতিহাস জানে না কেউ-ইতবু তো পার হতে দেখি চিরসকুটেরচকমকি হলুদ দিন (২) ছবি মনে পড়ে পাড়ভাঙা পরশিরকলেজ ফেরত হিমাংকের অভিমানদিকুলের দুইকূলে ঘন-সবুজ কবিতামাখাঝড়ের শব্দ প্লাবনগ্রন্থের ভেতর স্তব্ধ অলিগলিযেন এজিদ আর মেঘনাদবধ কাব্য (৩) দূরত্ব আড়াল করে পেখম তোলেনি ময়ূরশহরটা ছিল বিমর্ষপিপাসা কণ্ঠে আরও পড়ুন…

chaitri_bannerjee_guchho_kobita

চৈত্রী ব্যানার্জী-র গুচ্ছ কবিতা

আরোগ্য হুইসেল এমনি প্রত্যহ আষাঢ়ের অনাবৃষ্টি বিকেলে,মেয়েটা ছুটে আসে ছাতাহীন মাথাহীন ধড়।মধ্যবর্তী স্টেশনের আরোগ্য হুইসেল শুনেবৃষ্টিলোভাতুর।ডান করতলে;হাঁপ ধরা বাম বুক চেপে ধরে তার মনে হয়হৃদয় এক মুঠোফোন; গোরিলা গ্লাস ভেঙে গেলেদেখা যায় ছোঁয়া যায়একটু আধটু আঠালো জমিন।সেই থেকে সাবধানী মেয়েসাদা থানে মুড়েছে হৃদয়;যে বুকের ভার আছেতরঙ্গে ঈথার আছেআপাতত উপলব্ধ নয়। আরও পড়ুন…

somnath beniya guchho kobita

সোমনাথ বেনিয়া-র গুচ্ছ কবিতা

রক্তবাসনা দাঁড়ি পড়বে অনুচ্ছেদেস্নায়ুতে মন্থিত আবেগ রক্ত চায়আলতো কামড়ে ঠোঁট, পিপাসাপ্রিয়ঋতুর ভিতর চরম ফণার শীৎকাররোমকূপের ঘন নিশ্বাস নখের ভাষাআঁচড় যেখানে লালচে পথ…কানের লতিতে দাঁত, শব্দাঘাতপর্দা সরে গেলে লালচে ছিদ্র, নিবিড় কুট কুট কতরকম অতৃপ্ত, সমাপ্তইচ্ছা বেঁকে গেলে মেরুদণ্ড, সরীসৃপকীভাবে দেখবে বুকে হাঁটার চলনআঙুল কোমর বিছে, সুড়সুড়ি, শিহরণমাংসল পাহাড়ের শীর্ষ, গুঁটি, আরও পড়ুন…

nidhiram_sardar_er_guccho_kobita

নিধিরাম সর্দার-এর গুচ্ছ কবিতা

১. খুন চোখগুলি মুগ্ধ করেনিমুখ দেখে মনে হয় নি নিষ্পাপ তবু, ফিনকি ছোটার মূহুর্তে অবিশ্বাস্য পিশাচ উন্নাসিকনেচেছিল চোখে ২. আত্মহত্যা ভাত না খাওয়া কোনো কারণ নাভেবেছিলাম মানুষ কেটে খাবো জানালার সামনে কত চড়াই ঘুরে বেড়াচ্ছেবেড়াল ধরে ধরে মটকাচ্ছে ঘাড় মানুষেরা দূরে, দূরবীনে মনে হলো, আলাদা প্রজাতিদুটো ঘুড়ি,কিছুতেই এক আকাশেউড়বে না– আরও পড়ুন…

soumalyo-gorai-guchhokobita

সৌমাল্য গরাই-এর গুচ্ছ কবিতা

আয়না এমনই স্ফটিক স্বচ্ছ শরীর প্রদীপঅন্ধকারও নীচু হয়ে বসেদূর থেকে যেন লজ্জানত মেয়েযত কাছে যাবে উজ্জ্বলতা বাড়াবে দুহাতেভালবাসা এরকম মূককিছুটা আলো না দিলে তোমাকে সেদেখাবে না মুখ গলিপথ মুঠো ভরে আসে চেনা দুঃখেরঅলিখিত অন্ধকারে তুমি হাওয়ার স্যাক্সোফোনবুকভরা দীর্ঘ নিঃশ্বাসের পর থেমে থেমে যাওযেন পায়ের নীচে লেগে আছে কোনো অজ্ঞাত গলিযাত্রাপথে আরও পড়ুন…

animesh sarkar er guchho kobita

অনিমেষ সরকার-এর গুচ্ছ কবিতা

গভীর রাতের অসুখ পর্ব ১ গত রাতে আমিও ঠিক, এমন ভাবেই ছিলামখালি পথ, একা সিঁড়ি, খোলা ছাদের সঙ্গমসঙ্কর সমষ্টির কান্না আর বদ্ধ মানুষের চিৎকারগত রাতে ঠিক এমন ভাবেই আমিও ছিলাম। নিরাকার যে নারীতে একবার মিশেছে মোহনায় বাঁক নিতে চাওয়া পোস্টম্যান,যে ছাদের আলোয় আকাশ দেখা, গুমোট গরমের গড়ানো ভাতের ফ্যানসে হাওয়ায় আরও পড়ুন…

gonika

গণিকা

১. ধরো স্পর্শটুকু পেতে এই অভিনয়আড়চোখে দেখা ছুটন্ত ডানাদীর্ঘ নয় পথ, তবুস্বতন্ত্র আভাটুকু নিয়েধূসর স্থাপত্য গড়ে তোলেক্ষীণ আলোয় জেগেছে সংশয়এ শহরে গুজব চারিদিকে ২. তারা আর ফিরবে নামেঘ ভরে আছে আঙ্গুলের ফাঁকেতটরেখা সরে গেছে জেনেপ্রাচীন বন্দরের গণিকারাফুল হয়ে ফুটে ওঠে দ্বীপেউল্কির দাগ নিয়ে রাতগুলোচলে গেছে দূর থেকে দূরে ৩. যৌবন আরও পড়ুন…

chander_sisir

চাঁদের শিশির

১.বিকেলের ভিতর এসে পড়েছে চাঁদকত নিদ্রাহীন অহরহ রাতে তার পলায়নডাকাতখালির আল পেরিয়েদূর শাঁখের স্তবে,নিজেকে আকুতি সাজাও, পিদিম শিখার আদল তোমার বিমুখনিমের আলোয়, আড়াল হলেইঝরে পড়ে পাতা, দশমীর মায়াবকুল। ২.ভেবেছি সন্ধ্যার হাওয়া। দহনমাসেতুমি পথ ভুলে দশদিক, আউলা যেনকে অপূরণীয় পথ? পথিকের নির্মোহ?মাটির আলোটি ঠায়, পুড়ে যায় সন্তাপে। ৩.বিষণ্ণ জলে দেখি কার আরও পড়ুন…

tushartirtha_guccho_kobita

তুষারতীর্থ-এর একগুচ্ছ কবিতা

রক্তপলাশ আমার হৃদপিন্ড জমা থাকে তোমার তমসুকেজমা থাকে একান্ত সন্ধ্যার শিলালিপিবিষণ্ণ প্রেম তবু বয়ে চলে ধমনীর অন্ধকারেবসন্ত অধ্যুষিত জীবনে আমি হত্যা করিএকের পর এক কবিতাপলাশে পলাশে আচ্ছন্ন হয়ে ওঠে বিষাদ আখ্যান ক্যাকটাস তোমার ভিতরে বেড়ে ওঠে প্রিয় ক্যাকটাসতীব্র যন্ত্রণাময় অথচ নির্বিকারতবু আদর দাও স্পর্শ দাওজল মাটি খাদসংস্পর্শ লেগে থাকেসবুজ জীবনেউদাসী আরও পড়ুন…