রেনকোট

জয়াশিস ঘোষ on

স্টেশনের অন্য প্রান্তে নিভে আসে রোশনাই, আলো
একে একে বন্ধ হচ্ছে চাইনিজ, রোলের দোকান
ঝিরিঝিরি বৃষ্টি। এর থেকে চলে যাওয়া ভালো
আমারও জেদ ছিল, তুমিও বোঝোনি অভিমান

তোমাকে দেখেছিলাম রাতভর আশরীর ভিজে
একটানা ফুঁপে ফুঁপে উপচানো রেলধার, ঝিল
কোথাও যাওয়ার নেই, আশ্রয় হারিয়েছি নিজে
‘তেরে বিনা গুজারা, অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’!

কতটা একা থাকে সিগন্যাল, মফঃস্বল নিভে গেলে
নেভা উনুনের থেকে ওম নেয় বন্ধ শাটার
কি জানি কথা ছিল? রেখে গেছ হাতব্যাগে ফেলে
আমি সেই একা বসে ব্রিজ খেলা স্টেশন মাস্টার

এসব অপেক্ষার লিখিত প্রমাণ নেই কোনো
সেলাই করেছে তাকে জলভরা ছেঁড়া পথঘাট
আঙুল সুতোয় বাঁধা। দাবী তার করিনি কখনো
যদি লিখে দিতে বলো, আমি দেব ঘুমের মলাট

সে সুখ অসহ্য জানি, যেখানে লুকিয়ে থাকে ক্ষত
স্টেশন ঘুমিয়ে গেলে প্ল্যাটফর্ম জুড়ে থাকে জল
ফিরে গেছে পাখিগুলো বুড়ো ডাকপিওনের মত
ফ্ল্যাটবাড়ি জমে জমে নুয়ে গেছে বোবা মফঃস্বল

তারপর ফিরে যাও। মরে যায় বৃষ্টির তেজ
জলে ভাসা চারপাশ, জমে থাকা হাজার মেসেজ
আরও কিছু কথা বাকী, আরও কিছু অভিমান, রাগে
সামান্য জল তবু। তোমার চোখে অসামান্য লাগে!



জয়াশিস ঘোষ

জন্ম ১৯৭৯ সালের ২৬ শে জানুয়ারী। বেড়ে ওঠা মফস্বলে। তাই মফস্বল ঘুরে ঘুরে আসে তার কবিতায়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাণিজ্যে স্নাতকোত্তর। রাজ্য সরকারী চাকুরি করেন। লেখালেখি ছাড়া ঘুরতে ভালোবাসেন। ভালোবাসেন বৃষ্টি ভিজতে, ছবি তুলতে, মানুষ চিনতে। লেখা বেরিয়েছে দেশ, কৃত্তিবাস, শুধু বিঘে দুই, আদরের নৌকা, তবুও প্রয়াস, মাস্তুল ইত্যাদি ম্যাগাজিনে। রংছুট নামের লিটল ম্যাগাজিনের সাথে যুক্ত। প্রথম বই ' বৃষ্টি আসার পরে', নীলকন্ঠ প্রকাশনী। প্রকাশিত কবিতার বই- ' বৃষ্টি বাই লেন', অপদার্থের আদ্যক্ষর; ' চুল্লী', রংছুট। গদ্যের বই ' ডার্ক চকোলেট ও অন্যান্য', অপদার্থের আদ্যক্ষর।

1 Comment

Ajanta Bagchi · অক্টোবর 16, 2019 at 10:26 পূর্বাহ্ন

Izazat সিনেমা টা মনে পড়ে গেলো গুলজার সাহেবের।শেষের লাইন?।

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।