এক কাপ চা নিয়ে এখন যা যা চিন্তা করে ওঠা যায়নি অথবা এবং ইত্যাদি যোগে একটি লম্বা শিরোনাম

পার্থ সারথী দাস on

আমি: রাত যদি পাশবালিশ হয় তবে তুমি তার শয্যাসঙ্গিনী।এই শহরের যে মনস্তত্ব তা তুমি জানো? খবর রাখো?এক কাপ চা হাতে নিয়ে প্রশ্ন
রেখেছিলাম।

তুমি: আমি ডায়েরী নোট রাখি ।

ডায়েরী নোটস
১২.৪
স্কাইসক্রীপারের গায়ে হলুদ দীপ্তি
পাল্টে যায় প্রত্যেক রাতে
ওদের প্রত্যেকটা হলুদ অনেক
গল্প ভেতরে নিয়ে ভোররাতে নিভে যায়

২২.৪
শেষ রাতের
ঠিকরে পড়া লোলচর্ম চাঁদের প্রাণপাতি
গুনকীর্তন উপেক্ষা করে
ক্রসিং এ আটকে পড়া ড্রাইভার ক্রমাগত
জিততে চায়।
আমার চোখ এড়ায় না

আমি: দীর্ঘরাত্রিযাপন তোমার চোখের নিচে কালির ছাপ রেখেছে।তোমার ঠোঁটের ভেজা ভাব নেই ,পেলবতা নেই ,স্বাদ নেই নোনতা, কিছু নেই ,

কিচ্ছু নেই।
তোমার চুল উড়ে মুখের উপর এসে পড়েছে।
চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে বলি

তুমি:পৃথিবীর সমস্ত সামুদ্রিক হওয়া নোনতা।রক্তের জিভ নোনতা।নাবিকের ক্ষত নোনতা।এখানে কোনো সমুদ্র নেই।কার্নিশ থেকে দিকচকরবালে সমুদ্র দেখা যায়নি।এখন হাওয়ার গতিপথ অনতিদূর বাহারী গাছে ঢেউ তুলছে।ইমারতের ফাঁক দিয়ে ধূসর ল্যাবাইরিনথ, আকাশের।মায়াময় অরা ঘিরে আছে প্রতিটি বাতায়ন।

২৯.৪
আমার কলমকে সাপ ভেবে ভুল করি মাঝরাতে

৩১.৪
এখন শাশ্বত দিন।

এখানে এসে ডায়েরী শেষ হচ্ছে।

আমি: তুমি কে ?তুমি: অতিতের ছায়া হাতড়ে বেড়ালে তুমি নিশ্চিত ভাবে পথ হারাবে।তোমার অতীতে এমন কত লক্ষ কোটি সজীব-নির্জীব ছায়া নিশ্চল হয়ে দাঁড়িয়ে আছে,তোমার ভয় করেনা? প্রাণ ছিল, এমন যা কিছু আমার প্রিয়,যা সময়ের গোলকধাঁধায় পথ হারিয়েছে,ঘুমিয়ে রয়েছে এখন পাশাপাশি, মৃত দের সাথে,গভীর ঘুম,একই অন্ধকারের চাদর জড়িয়ে রেখেছে তাদের।বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমি ভুলে গেছি ,কাকে ঘুম থেকে ডেকে তুলবো ,জীবিত না মৃত।

***এই অবধি বলেই মেয়েটি ঝাঁপ দিয়েছিল বহুতলের ওপর থেকে।তার পড়নের ওভারকোটের পকেট খুঁজে পুলিশ কিছু পায়নি।তবে জিনসের পেছনের পকেটে একটি নোটবুক তারা পেয়েছিলেন. কাস্টডিতে ফিরে ইনভেস্টিগেটিং অফিসার সেটি খোলেন।প্রথম পাতায় কিছু লেখা ছিল।তিনি মনে মনে পড়েন,

Our own journey is entirely imaginary. That is its strength. It goes from life to death. People, animals, cities, things, all are imagined.

চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে দেখি শূন্যতা।কখন শেষ হয়েছে খেয়াল নেই।


ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিয়ে মন্তব্য করুন


পার্থ সারথী দাস

জন্মঃ ০৯/০৭/১৯৮৭ পেশাঃ কৃষি প্রযুক্তি সহায়ক। নেশাঃ লেখকের ভাষায়, "গল্প /কবিতা /প্রবন্ধ এরকম কিছুই নয় গোছের মাথামুণ্ডুহীন লেখার প্রয়াস"।

0 Comments

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।