শিশু

সোমনাথ বেনিয়া on

শৈশবের মাঠে অবিনস্ত্য দৌড়, বর্ষায় পুঁটি মাছ ধরার খেলা
উপরে যতটা আকাশ ছিল তার চেয়েও বেশি ছোটবেলা –

থেকে আজ অনেক দূরে, জীবনের অন্য কূলে, ইচ্ছে-কামড়
দিয়ে দেখছি, আলপথ, রাজপথের রূপ নিয়ে লাস্যময়ী চামর –

দুলিয়ে এগোয়, আর একটু-একটু করে বাড়ে শহুরে হৃদয়
সভ্যতার ঝাঁকুনিতে খুলে গেছে শরীর থেকে মাটির সঞ্চয়

ফেরা হবে না, বলো! হাতের আঙুল থেকে মুক্ত কিশোর-গন্ধ
সব জেনে বুঝে নিজের কাছে কুন্ঠিত হয়ে বড়ো বেবাক অন্ধ

বয়সের কাছে ছুরি রাখি কোনোদিন খণ্ডিত হই, অসংখ্য ক্ষত
স্পর্শে যে উষ্ণতা থাকে সেকী আশ্চর্য আমার মায়ের মতো!


সোমনাথ বেনিয়া

জন্ম কলকাতায়। রসায়ন বিজ্ঞানে স্নাতক। পেশায় চাকুরিজীবী। মূলত কবিতা লেখেন। লেখালিখির সূত্রে তিনি এখনও পর্যন্ত বিভিন্ন নামিদামি বাণিজ্যিক, অবাণিজ্যিক, লিটিল ম্যাগাজিন ইত্যাদিতে নিয়মিত লিখে চলেছেন। শূন্য দশকের কবি হলেও তার দুটি উল্লেখযোগ্য কবিতার বই "সাইকেল শেখার বয়স" এবং "স্যার শূন্য দিলেন" অতিসম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। কবিতা চর্চাকে তিনি নিজের মানসিক আশ্রয় হিসেবে দেখেন যেখানে তার অনুভূতিগুলি নিজের মতো প্রশ্রয় পেয়ে লালিতপালিত হয়। শখ বলতে বই পড়া, ঘুরতে যাওয়া আর পুরস্কার বলতে পাঠকের ভালোবাসাকে বোঝেন।

0 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।