মরু সুন্দরী

শর্মিষ্ঠা বিশ্বাস on

এই যে জল আছে বলে মনে মনে স্নানের অভ্যাস! গড়ে ওঠা একটি মস্ত বড় ইমারত ভেঙ্গে পড়ে গেল, যেন এক স্নায়ুযুদ্ধ শেষে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হোলো, আমার শহরকে পৃথিবীর সাথে চলে যেতে হবে বহুদূর ভবিষ্যতের দিকে। নজর রাখছি উটের পিঠ থেকে বালিরঙ জমির ওপর দিয়ে মকরক্রান্তি রেখা চলে গেলো যেখানে, সেইখানে প্রদীপের শিখার নীচে কতটা অন্ধকারে গাছ লাগিয়েছিলেন, জলে জলময় করে দিয়েছিলেন যিনি, তিনিও জন্মেছিলেন জলের মতো কোনো শব্দের অরণ্যে।

আচ্ছাদিত মায়াবী মরু সুন্দরীর পত্রলিপি আমার শহরকে-
সংস্কৃতির চোরাগোপ্তা ক্যাকটাসের কাঁটার অলিগলিতে, যেখানে পাইপের মুখ দিয়ে প্রবাহিত হয় অনন্ত জীবন! ঝর্ণার শব্দ হয়ে যায় কখনো কখনো কোন গাঁয়ের সন্ধ্যারাত, আমিও লিখেছি নীল সাদা জমিতে সেই নক্ষত্রের মেলার মাঠে – জলবিহারে, জলবিম্ব অবলীলায় কিভাবে শুকনো পাঁপড়িতে বালি আর বালিয়াড়ির মতো নিষ্পলক চেয়ে থাকে আত্মীয় হারানোর পর একটি খটখটে গ্রীষ্মের ছুটির হাঁসের দিকে চেয়ে।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিয়ে মন্তব্য করুন


শর্মিষ্ঠা বিশ্বাস

নাম- শর্মিষ্ঠা বিশ্বাস। জন্ম ১৪ই নভেম্বর, মালদা জেলা। শিক্ষা - উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলায় স্নাতক । লেখালেখি - নয়'র দশকের গোড়া থেকে কবিতা, গল্প, প্রবন্ধ, গদ্য ইত্যাদি। দেশে ও বিদেশে, বাংলাভাষা যতদূর, ততোদূর পর্যন্তই । বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় লেখালেখি। বর্তমানে নানা ওয়েব ম্যাগাজিনেও চলছে লেখালেখি। এপর্যন্ত কবিতা ও ছড়া মিলিয়ে বইএর সংখ্যা সাত। পুরস্কার ও সম্মাননা - পিইএন ( বিশ্ব) কর্তৃক নবীন প্রতিভা সম্মাননা ১৯৯৪, ২০০৪-এ সীমান্ত সাহিত্য সম্মাননা, ২০১২ তে স্বপ্নভূমি সাহিত্য সম্মান ও বাংলাদেশের কবিকুঞ্জ,ঝাড়বাতি সহ বিভিন্ন সাহিত্য সংগঠন থেকে সম্মাননা। ভালোবাসা - ভ্রমণ।

0 Comments

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।