বৃষ্টি যখন তুমি হয়ে যায়

অগ্নিশিখা ( দীপান্বিতা বালিয়াল ) on

আজ যেন সব কিছুতে বড় তুমি তুমি ভাব
আকাশ,মেঘ, ঝড়, বৃষ্টি,সব স…..ব।
অন্যদিনের মত আজ ও ছুটিরঅলস দুপুরে
বসেছিলাম গঙ্গার ঘাটে একা
ওহো! ভুল বললাম।
তুমি আমাকে একা থাকতে দিলে তো!
না থেকেও যেন লেপ্টে থাকো সারাক্ষন।

চারিদিকে কত কোলাহল তারই মাঝে
এক গভীর নীরবতা।
মেঘের মধ্যে ভেসে উঠছে কত ছবি
হঠাৎ দেখি মেঘ গুলো ছুটে এল আমার কাছে
তোমার মত করে গলাটা জড়িয়ে ধরে জিজ্ঞেস করল, “কেমন আছ তুমি?”
জানি তুমি ই পাঠিয়েছ ওদের।
উত্তর দিতে যাব এমন সময় দেখি
ধেয়ে আসছে ঝোড়ো হাওয়া।
এসেই খেলা শুরু করল
আমার লম্বা চুলগুলো নিয়ে।
যেগুলো নাকি তোমার ভীষণ প্রিয়।
নাকের কাছে চুল গুলো নিয়ে একটা লম্বা শ্বাস টানল
ঠিক তোমার মত করে
তারপরেই বড় দস্যি হয়ে উঠল সে।
টান দিতে লাগল আঁচল ধরে
জানি জানি! এ সব ই তোমার শিক্ষা।
আমি ও বিনা যুদ্ধে নাহি দিব সূচাগ্র মেদিনী।
লড়াই চালিয়ে গেলাম সমানে।
আমার কাছে হেরে গিয়ে সে কি গর্জন!
ভাবল ভয় পেয়ে আমি বুঝি
আত্মসমর্পন করব ওর কাছে।
আসলে ও জানেনা ভয় পেয়ে
জড়িয়ে ধরার মত কেউ নেই
এখন আমার।
তাই আমি এখন অনেক বেশি সাহসী।
মৃত্যুই বরং এখন ভয় পায় আমায়।
ভুল করেও আসেনা ধারে কাছে।

তারপর চারিদিক জুড়ে এক নিস্তব্ধতা
হঠাৎ সেই নিস্তব্ধতার বুক চীরে
নেমে এল দামাল বৃষ্টি।
আমার চুল, কপাল, নাক, ঠোঁট ছুঁয়ে
সে নামতে লাগল
আর পারলাম না আটকাতে।
হয়তো চাইনি মনে মনে।
গলা বেয়ে সে পৌঁছে গেল
সেই তিল টার কাছে
যাকে ছোঁয়ার আকন্ঠ তৃষ্ণা নিয়ে
ঝগড়া করে কথা বন্ধ করেছ কতবার।
ভিজিয়ে দিল তাকে
মনে হল, এতো তুমি!
তুমি ছাড়াই তোমার স্পর্শে কেঁপে উঠল
ফসিল হয়ে যাওয়া শরীর।
শিহরণ জাগল প্রতি রক্ত কণায়।
যেন শুকিয়ে যাওয়া একটা গাছ
আবার সতেজ হয়ে উঠল প্রথম বৃষ্টির ফোঁটায়।

 


অগ্নিশিখা ( দীপান্বিতা বালিয়াল )

 , যিনি সাহিত্যের জগতে অগ্নিশিখা নামেই পরিচিত, তার  জন্ম ও বেড়ে ওঠা  হুগলি জেলার খানাকুলের সেনপুর গ্রামে  ।ইংরাজী সাহিত্যে স্নাতকোত্তর ও বি.এড ডিগ্রী অর্জন করে এখন একটি হাই স্কুলে ইংরাজীর শিক্ষিকা হিসাবে কর্মরতা।পঞ্চম শ্রেণীতে স্কুল ম্যাগাজিনে কবিতা লেখার মধ্য দিয়ে কবিতা লেখায় হাতেখড়ি।তারপর বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে তাঁ র কবিতা।সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁ র কবিতা জয় করেছে অসংখ্য মানুষের মন। পাঠকদের মুগ্ধতাই তাঁকে অনুপ্রাণিত করেছে কাব্যগ্রন্থ প্রকাশে।গত বছর ই প্রকাশিত হয়েছে তাঁ র কাব্যগ্রন্থ" একলা জাগা মন"। কবিতা লেখার পাশাপাশি আবৃত্তি , শ্রুতিনাটক ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনাতে যথেষ্ট খ্যাতি অর্জন করেছেন তিনি।অত্যন্ত আবেগপ্রবন ও অনুভুতিশীল এই মানুষ্টি কখনই সমাজ বিমুখ নন।সংস্কৃতি চর্চার পাশাপাশি বিভিন্ন জনকল্যান মুখী কাজের সাথে যুক্ত থেকেছেন তিনি বারবার।মানুষের যন্ত্রনায় কেঁদেছে তাঁ্র হৃদয় আর তার প্রতিফলন ঘটে তাঁ র লেখাতেও।

1 Comment

রফিক আহমেদ · আগস্ট 19, 2018 at 3:42 অপরাহ্ন

প্রখর কল্পনাশক্তির বিস্ময় কাব্য প্রতিভার অধিকারিণী অগ্নিশিখার সম্পর্কে অল্পকথায় মন্তব্য করা কঠিন।তার অনুভূতি প্রকাশের বৈচিত্র্যময় কারুকাজ শুধু অবাক করে না হতবাক হয়ে যাই।আমি তার প্রশংশা করে থাকে থামিয়ে দিতে চাইনা কারণ তার কাছে বাংলা কাব্য ভান্ডারের আরও অনেক সৃষ্টি এখনও পাওয়া বাকি আছে।

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।