বৃক্ষ কথা

নীপবীথি ভৌমিক on

       কিছু কিছু বৃক্ষের রং অরণ্যের মতো গভীর হয়
ছুঁয়ে থাকে যারা নদীজন্ম,উত্তাল সামুদ্রিক ডাক।

       জলাধারে এসে ছায়া লুকিয়ে যায় যে হরিণীর দল-
       কান্নাকাটির খেলায় ভিজতে হলে,যেও বরং তাদের কাছে;
ভালোবাসা প্রজাপতি জেনেই মেঘ সাজিয়ে রাখে যারা বৃষ্টির কাছে…

      বাতাস ওড়ে খুব। ঠিক যেমন প্রবল ঝড়ের পরে !
অথচ, দেখা কি যায় কখনো সেই বাতাসের সুখ?
       সুখ গভীরতার দাগ যে অ-সুখের সুখী রং !
বৃক্ষ জানে সে কথা। ঝড়ের পরে তাই আবারও বেঁচে ওঠে মৃত ডালপালা তার_

        অরণ্যকে জানতে শিখলে তুমিও হবে প্রেমিক
দূর থেকে গভীরতর ঘর,ঘর ছুঁয়ে নামা প্রবীণ বৃক্ষ চিহ্ন ।



নীপবীথি ভৌমিক

সাহিত্যের আবহাওয়া সমৃদ্ধ পরিবেশে জন্ম‌ উত্তর চব্বিশ পরগনার বসিরহাটে। লেখা লেখির অভ্যাস ছোট থেকে। বাবাকে দেখেই অনুপ্রাণিত হওয়া। প্রথম প্রকাশিত লেখা যুগ সাগ্নিক পত্রিকা। লিখে থাকেন মাসিক কৃত্তিবাস, লংজার্নি পত্রিকা এছাড়া ভারত, বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্র পত্রিকায়।

0 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।