লোকটি বাঘের ডাক নকল করতে পারে
নদীপারে জল খেতে আসা অদ্ভুত এক শূন্যতার ডাক।
আমরা পরিস্থিতি তৈরি করে দি
‘এইবার হরিণ দেখতে পেলে,
এইবার ওই ঘাটে মেয়েছেলে’
লোকটি পাল্টে দেয় কণ্ঠ
ঠোঁট কুঁচকে, পেট কুঁচকে বদলে ফেলে নিজেকে।

আমরা পরিস্থিতি তৈরি করে দি
‘একটি বড়দেহ পড়ে আছে, ধরে নাও বাঘেরই পোয়াতি বউ’
জলে জিভ ফেলে বাঘ
জল চলকানোর শব্দ ছলাৎ-ছল
আমরা মজা পাই
ভাবি এসমস্ত অরণ্য সঙ্গম
ভাবি এসমস্ত নকল রপ্তানি

লোকটি হেঁটে যায় অন্য ভিড়ের ভিতরে।
পোশাকে ঢেকে রাখে বুকের ডোরাকাটা দাগ
মৃত শাবকের হাসিমুখখানি।
নোংরা চুল ঝাঁকড়ে বলে
বাঘে নিয়ে গেল ছেলে-
রক্ত খাওয়ার শব্দ শোনো
জিভ থেকে চলকে পড়ে তরল
ছলাৎ-ছল।

কোলের শিশুরা ভয় পায়
তাদের উৎসাহী মা তর্জনীতে নকল বাঘ দেখিয়ে
গ্রাসে গ্রাসে অরণ্য খাওয়ায়।


স্নেহাশিস ব্যানার্জ্জী

জন্ম ১৯৯১ সালের নভেম্বর মাস, পশ্চিম বর্ধমান জেলার দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের সরপী গ্রামে । বাবা- শ্রী শ্যামাশিস ব্যানার্জ্জী, মা- শ্রীমতী মায়া ব্যানার্জ্জী । শিক্ষা ও পেশা- গণিতে স্নাতক, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক । ঠিকানা- গ্রাম+পো- সরপী, জেলা- পশ্চিম বর্ধমান, পিন- ৭১৩৩৬৩আত্মপ্রকাশ- মধ্যাহ্ন পত্রিকা কবিতা ছাড়া অন্য মাধ্যম- গল্প , গুটিকয় প্রবন্ধ আর নাটক । বই- মিছিলের শেষে দাঁড়িয়ে (২০১৭) ।আগামী ত্রৈঋতুকের পক্ষ থেকে পেয়েছেন " তরুণ কবি সম্মাননা ২০১৬ " । প্রিয় কবি- জয় গোস্বামী । প্রিয় বই- ইস্পাত, কালপুরুষ । নিয়মিত লেখার কাগজ- অপদার্থের আদ্যক্ষর পত্রিকা, সুরজিৎ ও বন্ধুরা কবিতা ক্লাবের বই।

0 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।