জোঁক

সোমনাথ বেনিয়া on

কার অপরাধ বলবে? যতবার ভালো লিখতে চাই, ততবার কালোর মেঘ বৃষ্টি ঝরিয়ে যায়। সমস্ত শরীরে জোঁকের অসহ‍্য অত‍্যাচার শুরু হয়। প্রতিটি অক্ষরকে প্রাণপণ কামড়ে রক্ত চুষতে থাকে। পুরো মস্তিষ্ক খালি হয়ে যায়। ধূসর ঘোর স্নায়ুর বিছানায় গড়াগড়ি খায়। ভেবে ছিলাম একটি ভালো লেখা মানে একটি ভালো গাছ। সেই গাছের ফুল-ফল দেখে আসবে পাখি, কথা হবে ইশারায়। ভিন্ন প্রজাতির মধ‍্যে গড়ে উঠবে এক অভিন্ন ভালোবাসার বন্ধন। হলো কোথায়! হাত কাঁপছে, কাঁপছে হৃদয়ের স্পন্দন। আমাদের চুম্বনে ঠোঁটের লালচে রেখায় তড়িৎ খেলে গেলে, জোঁকের কিলবিলানি বেড়ে যায়। এখন শুকিয়ে যাওয়া কবিতার পাতা পুড়িয়ে এক পুরিয়া নুন পাওয়া যাবে কি? এই সংশয় নিয়ে সুন্দরকে ব‍্যাখ‍্যা করা সম্ভব নয়। তাই হয়ত ফকির কিংবা মেঠো বাউল হ‌ওয়া হলো না, জানা হলো না আলপথের সাথে জ‍্যোৎস্নার গোপন প্রেমপর্বের শেষমেষ কথাবার্তা। অপরাধ তবে আমাদের। স্পর্শ আন্তরিক না হলে সম্পর্ক জোঁক হয়ে যায় …


সোমনাথ বেনিয়া

জন্ম কলকাতায়। রসায়ন বিজ্ঞানে স্নাতক। পেশায় চাকুরিজীবী। মূলত কবিতা লেখেন। লেখালিখির সূত্রে তিনি এখনও পর্যন্ত বিভিন্ন নামিদামি বাণিজ্যিক, অবাণিজ্যিক, লিটিল ম্যাগাজিন ইত্যাদিতে নিয়মিত লিখে চলেছেন। শূন্য দশকের কবি হলেও তার দুটি উল্লেখযোগ্য কবিতার বই "সাইকেল শেখার বয়স" এবং "স্যার শূন্য দিলেন" অতিসম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। কবিতা চর্চাকে তিনি নিজের মানসিক আশ্রয় হিসেবে দেখেন যেখানে তার অনুভূতিগুলি নিজের মতো প্রশ্রয় পেয়ে লালিতপালিত হয়। শখ বলতে বই পড়া, ঘুরতে যাওয়া আর পুরস্কার বলতে পাঠকের ভালোবাসাকে বোঝেন।

0 Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।