পদ্মা পাড়ের গল্প

কৃষ্ণেন্দু পালিত on

গত পনের বছর ধরে বিশেষ প্রয়োজনে মাঝে মাঝে মুর্শিদাবাদ যেতে হয় আমাকে । যখনই মুর্শিদাবাদ যাই, সময় সুযোগ হলে একবার পদ্মার ধার থেকে ঘুরে আসি । জায়গাটার নাম খাদুয়া । লালগোলা থেকে পাঁচ কিলোমিটার ভেতরে ৷ এক সময় এই নামে একটা গ্রাম ছিল এখানে ৷ এখন নদীগর্ভে | রয়েগেছে শুধু নামটুকু | কেবল খাদুয়া নয়, কালীনর, সেখালি… এরকম অনেক গ্রাম তলিয়ে গেছে পদ্মার সর্বনাশা ভাঙনে | উদ্বাস্তু হয়েছে হাজার হাজার পরিবার ৷ কেউ আশ্রয় নিয়েছে আশেপাশের গ্রামে, কেউ রাস্তার ধারে সরকারি জায়গায়, কেউ চলে গেছে অন্যত্র | বর্ষায় সবচেয়ে ভয়াবহ হয়ে ওঠে পদ্মা ৷ দু কূল ছাপিয়ে বহুদূর প্লাবিত করে ৷ বর্ষার শেষ দিক থেকে শুরু হয় ভাঙ্গন |
বহু মৎস্যজীবী পরিবার আজ ও জীবিকার জন্য এই পদ্মার উপর নির্ভরশীল | আজও সূর্যাস্তে অপরূপ হয়ে ওঠে পদ্মাপাড় ৷ আজও শৈশবের ক্রীড়াভূমি এই পদ্মা | আশেপাশের গ্রামগুলির মানুষ পার্কের প্রয়োজন মেটাতে বিকালে ছুটে আসে এই পদ্মাপাড়ে ৷ প্রেমিক-প্রেমিকাদের নিভৃত যাপনের স্থানও এই পদ্মাপাড় ৷ পদ্মা ভাঙে | পদ্মা গড়ে ৷ এভাবেই বয়ে চলে পদ্মা ৷ বয়ে চলে পদ্মা পাড়ের জীবন ৷

ভাঙনঃ

জীবিকাঃ

জীবনঃ



কৃষ্ণেন্দু পালিত

নাম- কৃষ্ণেন্দু পালিতজন্ম- ১অক্টোবর ১৯৭৩নিবাস- বনগাঁ, উঃ ২৪ পরগনাপেশা- শিক্ষকতা (বিষয়-বাংলা)নেশা- ছোটগল্প লেখা, বেড়ানো, ছবি তোলা এবং ভ্রমণ কাহিনি লেখা । ফটোগ্রাফিতে রাজ্য এং জাতীয়স্তরে একাধিক পুরস্কার । Better Photography, Asian Photography, Smart Photography সহ দেশের প্রথম সারির প্রায় সমস্ত Photography Magazine-এ ছবি প্রকাশিত হয়েছে একাধিকবার ।প্রথম লেখা গল্প “চান্দ্রায়ণ” একাদশ শ্রেণিতে পড়ার সময়, ১৯৮৯ সালে।  প্রকাশিত হয়েছিল পাড়ার কালীপূজা উপলক্ষে প্রকাশিত দেওয়াল পত্রিকায় । পরবর্তীকালে ২০১৬ সালে সামান্য এডিট করে “কালি ও কলম” পত্রিকায় প্রথম মুদ্রিত । ছাপার অক্ষরে প্রথম গল্প(অণুগল্প) “জন্মদিন” ১৯৯২ সালে একটি পুজো সুভেনিরে প্রকাশিত হয়। প্রথম ছোটগল্প “পারাবার” ছাপা হয় ১৯৯৩ সালে আমি এবং অর্ঘ্য মণ্ডল সম্পাদিত “ফসিল” সাহিত্যপত্রের প্রথম সংখ্যায়। তারপর থেকে প্রথম শ্রেণির প্রায় সমস্ত বাণিজ্যিক এবং অবাণিজ্যিক পত্রিকার নিয়মিত ছোটগল্প প্রকাশিত হচ্ছে । মাঝখানে পারিবারিক এবং ব্যক্তিগত কারণে ৭/৮ বছর লেখালেখি বন্ধ থাকার পর ২০১২-র পর থেকে আবার ফিরে আশার চেষ্টা ।প্রকাশিত গ্রন্থ- (১) ম্যাজিশিয়ান (গল্পগ্রন্থ) ২০০১(২) যেমন খুশি সাজো (কিশোর গল্প সংকলন) ২০০৩(৩) অন্নদামঙ্গলে নেই (গল্পগ্রন্থ) ২০০৫(৪) অল্প কথার গল্প (গল্পগ্রন্থ) ২০১২, দ্বিতীয় সংস্করণ ২০১৫(৫) দিব্যর প্রতিদিন একদিন (গল্পগ্রন্থ) ২০১৪(৬) নতুন গল্প ২৫ (গল্পগ্রন্থ) ২০১৭(৭) দশ গোল্লা (কিশোর গল্প সংকলন) ২০১৮

1 Comment

Via Artiam · জুন 21, 2020 at 7:58 অপরাহ্ন

খুব ভালো লাগলো

মন্তব্য করুন

Avatar placeholder

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।